বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ০৮:১১ অপরাহ্ন

হাদিসুরের পরিবার পাচ্ছে পাঁচ লাখ ডলার, ভাই পাচ্ছেন চাকরি

প্রতিনিধির নাম / ২৩৪ বার
আপডেট : বুধবার, ২৫ মে, ২০২২
হাদিসুরের_পরিবার_পাচ্ছে_পাঁচ_লাখ_ডলার,_ভাই_পাচ্ছেন_চাকরি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, নরসিংদী জার্নাল।। হাদিসুরের পরিবার পাচ্ছে পাঁচ লাখ ডলার, ভাই পাচ্ছেন চাকরি

ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত ‘এম ভি বাংলার সমৃদ্ধি’ জাহাজে নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের পরিবারকে পাঁচ লাখ ডলার (প্রায় পাঁচ কোটি টাকা) ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি)।

এছাড়া হাদিসুরের ভাইকে বিএসসিতে চাকরি দেওয়া হবে। আগামী ১ জুন তিনি চাকরিতে যোগদান করবেন। জাহাজের অন‍্য সদস‍্যরা সাত মাসের বেতন পাবেন বলেও সিদ্ধান্ত হয়েছে।

আজ বুধবার (২৫ মে) ঢাকায় বিএসসি টাওয়ারে অনুষ্ঠিত সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদের ৩১২তম বৈঠকে এসব সিদ্ধান্ত হয়। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম খান এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী এবং বিএসসি পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম‍্যান খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

এসময় অন‍্যান‍্যের মধ‍্যে পরিচালনা পর্ষদের সদস‍্য নৌপরিবহন সচিব মো. মোস্তফা কামাল, স্বতন্ত্র পরিচালক প্রফেসর এম শাহজাহান মিনা, স্বতন্ত্র পরিচালক ড. মো. আবদুর রহমান, বিএসসির ব‍্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর এস এম মনিরুজ্জান, অর্থ বিভাগের যুগ্ম পরিচালক নাসিমা পারভীন, ড. পীযূষ দত্ত ও মোহাম্ম ইউসুফ উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকে নিহত হাদিসুরের আত্মার মাগফেরাত কামনাসহ তাঁর শোকাহত পরিবারের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করা হয়।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ চলাকালে গত ২ মার্চ ইউক্রেন উপকূলে বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজে রকেট হামলা হয়। এতে জাহাজের থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর মারা যান।

বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) জাহাজ ‘বাংলার সমৃদ্ধি’ ডেনিশ কোম্পানি ডেল্টা করপোরেশনের অধীনে ভাড়ায় চলছিল। মুম্বাই থেকে তুরস্ক হয়ে গত ২২ ফেব্রুয়ারি জাহাজটি ইউক্রেনের ওলভিয়া বন্দরে নোঙর করে। ওলভিয়া থেকে সিমেন্ট ক্লে নিয়ে ২৪ ফেব্রুয়ারি ইতালির রেভেনা বন্দরের উদ্দেশে রওনা হওয়ার কথা ছিল জাহাজটির।

কিন্তু ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার যুদ্ধ শুরু হলে ২৯ জন নাবিক ও ক্রু নিয়ে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে বন্দরে আটকা পড়ে জাহাজটি। ২ মার্চ একটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে জাহাজটিতে। গোলার আঘাতে প্রাণ হারান প্রকৌশলী হাদিসুর। অল্পে রক্ষা পান বাকিরা।

ঘটনার পরদিন জীবিত ২৮ নাবিককে উদ্ধার করে ইউক্রেনের একটি বাঙ্কারে নেওয়া হয়। পরে জীবিত নাবিকদের নিরাপদে রোমানিয়ায় নেওয়া হলেও হাদিসুরের মরদেহ ইউক্রেনের একটি বাঙ্কারে ‘ফ্রিজআপ’ করে রাখা হয়।

ইউক্রেন থেকে মলদোভা ও রোমানিয়া হয়ে ৯ মার্চ দুপুরে দেশে ফেরেন ২৮ নাবিক। ঘটনার ছয় দিন পর নিথর দেহে দেশে ফিরেন হাদিসুর রহমান।

এই ওয়েবসাইটের কোন লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। তাসরিফ/নরসিংদী জার্নাল

 

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ

error: Content is protected !!
error: Content is protected !!